ঘর সাজানোর পেশা

সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে মানুষের কাজের ক্ষেত্রও বাড়ছে। নিত্য নতুন এসব কর্মক্ষেত্রে নিজেদের যুক্ত করে অনেকেই সফলভাবে তাদের ক্যারিয়ার গড়ে তুলছেন। আমাদের দেশে তেমনি একটি কর্মক্ষেত্র হচ্ছে ইন্টেরিয়র ডিজাইন। প্রতিটি স্থানকে কাজে লাগিয়ে আসবাব, লাইট, গৃহসজ্জা সামগ্রীর যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমে বাড়ি, অফিস বা যেকোনো প্রতিষ্ঠানকে আরামদায়ক ও নান্দনিকভাবে উপস্থাপন করাই ইন্টেরিয়র ডিজাইনের প্রধান লক্ষ্য। আর যিনি এ কাজ সুনিপুণভাবে করে থাকেন তিনি ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। আগে আমাদের দেশে স্থপতিরাই কোনো ভবন নির্মাণের পাশাপাশি তার ইন্টেরিয়র ডিজাইনও করতেন। কিন্তু বর্তমানে আর্কিটেকচার ও ইন্টেরিয়র ডিজাইন পৃথকভাবে করা হয়।
বর্তমানে আমাদের তরুণরা এ ক্ষেত্রটিতে নিজেদের যুক্ত করে গড়ে তুলছে সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার। বিভিন্ন আর্কিটেকচারাল ফার্ম, রিয়েল এস্টেট কোম্পানি, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ফার্ম, ইন্টেরিয়র ডিজাইন ফার্ম, পেইন্ট কোম্পানিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের প্রচুর চাহিদা আছে।

ইন্টেরিয়র ডিজাইন সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আমরা উপস্থিত হয়েছিলাম রেডিয়েন্ট ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন-এর প্রধান গুলশান নাসরিন চৌধুরীকাছে। এ বিষয়ে তিনি জানিয়েছেন বিস্তারিত। তাঁর সাথে ক্যারিয়ার ইন্টেলিজেন্সের আলাপচারিতা পাঠকদের উদ্দেশে তুলে ধরা হলো-

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : শুরুতেই জানতে চাইবো রেডিয়েন্ট ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন কোন ধরণের প্রতিষ্ঠান?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : এটি একটি ক্যারিয়ার ভিত্তিক প্রফেশনাল প্রতিষ্ঠান। এখানে বিভিন্ন কোর্সের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। যেমন গ্রাফিক্স ডিজাইন, ইনটেরিয়র ডিজাইন, ইকোবেনা, বনসাই ইত্যাদি। এ প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা প্রশিক্ষণ নিয়ে বিভিন্ন প্রফেশনাল কাজ করতে পারে।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : ইনটেরিয়র ডিজাইন কী?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : অনেকেই চান অফিস বা বাসা সুসজ্জিত হোক। যাতে অফিস বা বাসার মধ্যে কোন স্পেস যাতে নষ্ট না হয়। এই ডেকোরেটেশনকে বলা হয় ইনটেরিয়র ডিজাইন।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : এর জন্য কোন প্রশিক্ষণের প্রয়োজন আছে কি?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : অবশ্যই প্রশিক্ষণের প্রয়োজন আছে। প্রশিক্ষণ ছাড়াতো কোনো কাজ করা সম্ভব নয়।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : প্রশিক্ষণে খরচ কেমন?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : বিভিন্ন কোর্সের খরচ বিভিন্ন ধরনের। সংক্ষিপ্ত কোর্সগুলো তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকার মধ্যে। ছয় মাস মেয়াদের কোর্সগুলো ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকার মধ্যে। এক বছরের ডিপ্লোমা কোর্স ফ্যাশন ডিজাইন ৬০ হাজার টাকা। দুই বছরের ডিপ্লোমা কোর্স এক লাখ ২০ হাজার টাকার মধ্যে। আর ইন্টেরিয়র প্রশিক্ষণে এক বছরের ডিপ্লোমায় ৬৩ হাজার টাকা এবং দুই বছরের ডিপ্লোমা করা যাবে এক লাখ ৫০ হাজার টাকার মধ্যে।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : ইনটেরিয়র ডিজাইনার হওয়ার জন্য কম্পিউটার জানা কতটুকু দরকার?   
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : অবশ্যই কম্পিউটার জানার প্রয়োজন আছে। এ জন্য এর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত কিছু সফটওয়্যারের কাজও জানতে হবে। বিশেষ করে অটোক্যাড, থ্রিডি স্টুডিও ম্যাক্স সফটওয়্যার সম্পর্কে জানা উচিত। ধরুন আপনি যদি কোন অফিস ডেকোরেশনের জন্য ডিজাইন করবেন। অফিসের মালিক হয়তো অর্ধশিক্ষিত। তখন তাকে কম্পিউটারের মাধ্যমে ডিজাইনটা দেখাতে হবে। আর বর্তমান যুগে কম্পিউটার না জানলে আপনিতো কিছুই জানেন না।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : লেখাপড়ার পাশাপাশি এ কাজে সম্পৃক্ত থাকা কতটা সম্ভব?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : অনেক শিক্ষার্থীই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছেন, সঙ্গে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। আবার প্রশিক্ষণ শেষে খণ্ডকালীন চাকরিও করছেন। কারণ আমাদের প্রতিষ্ঠানে ক্লাস নেয়া হয় বিভিন্ন সময়ে।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : ইনটেরিয়র ডিজাইনার হওয়ার জন্য কী যোগ্যতা প্রয়োজন?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : ন্যূনতম এইচএসসি পাস হতে হবে।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : প্রশিক্ষণ কোন মাধ্যমে?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : বাংলা মাধ্যমে ক্লাস নেয়া হয়। তবে মাঝে মধ্যে কিছু ঊহমষরংয ঞবৎস-ও পড়তে হয়।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : বাংলাদেশে ইনটেরিয়র ডিজাইনের চাহিদা কেমন?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : বাংলাদেশেও অনেক চাহিদা আছে। কারণ, মানুষ চায় তার ঘর, অফিস বা দোকানটা অন্যদের থেকে আলাদা ডেকোরেটেড হবে। আর এর জন্য প্রয়োজন ইনটেরিয়র ডিজাইনার।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : এ ধরনের পেশা থেকে কী পরিমাণ আয় করা সম্ভব?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : এটা অনেকটা নির্ভর করছে ব্যক্তির যোগ্যতার ওপর। কারণ আমাদের দেশে ইইঅ করার পর ১০ হাজার টাকা বেতনে কাজ শুরু করে। আবার অনেকে ২০ হাজার দিয়েও শুরু করে। ঠিক তেমনি আপনি যদি আপনার যোগ্যতাটাকে প্রকাশ করতে পারেন তবে আয়ের পরিমাণ ২০ হাজার থেকে ১ লাখেরও বেশি হতে পারে।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : ইনটেরিয়র ডিজাইনের জন্য বিদেশ থেকে কোনো ডিগ্রি নেয়ার প্রয়োজন আছে কি?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : যদি কেউ উচ্চতর ডিগ্রি নিতে চায় তাহলে সে নিতে পারে। বিদেশে অনেক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি নেয়ার সুযোগ আছে।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : কেউ যদি ইন্টেরিয়র ডিজাইনের একটি প্রতিষ্ঠান দিতে চান, সে ক্ষেত্রে কী কী উপকরণ লাগবে?
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : যাঁরা ইন্টেরিয়র ডিজাইনার তাঁদের জন্য নতুন কোনো প্রতিষ্ঠান শুরু করতে কোনো সমস্যা নেই। একটি মোবাইল ফোন থাকলেই যথেষ্ট। আর এ জন্য দরকার আগ্রহ। এ ছাড়া প্রতিষ্ঠানের জন্য কমপক্ষে দুইজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার লাগবে। দুটি কম্পিউটার থাকতে হবে। একজন খসড়া প্রস্তুতকারকও থাকতে হবে।

ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স : ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্সকে সময়কে দেয়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।
গুলশান নাসরিন চৌধুরী : আপনাকেও ধন্যবাদ।

প্রশিক্ষণ নেবেন কোথায়?

বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে বেশ কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ইন্টেরিয়র ডিজাইনের ওপর ডিপ্লোমা ও সার্টিফিকেট কোর্স চালু আছে। সাধারণত এসএসসির পর চার বছরের ডিপ্লোমা কোর্স এবং এইচএসসি ও অনার্স পাস করে এক বছরমেয়াদি সার্টিফিকেট কোর্স করা যায়। কিছু প্রতিষ্ঠানে দুই বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা কোর্স চালু আছে। এ ছাড়াও বর্তমানে কিছু প্রতিষ্ঠান ইন্টেরিয়র ডিজাইনিংয়ের ওপর বিএসসি কোর্স চালু হয়েছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বিএসসি কোর্স করানো হয়।
এসব কোর্সে আর্কিটেকচারাল ড্রয়িং, ফ্লোরিং ফার্নিচার ডিজাইন, গ্রাফিকস ডিজাইন, ল্যান্ডস্কেপ ডিজাইন, অটোক্যাড, এয়ারকন্ডিশনিং, ফলস সিলিং, কালার কম্বিনেশন ইত্যাদি বিষয় শেখানো হয়। এ ছাড়া কোর্স শেষে ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা আছে।
যাঁরা ইন্টেরিয়র ডিজাইনে প্রশিক্ষণ নিতে চান তাঁদের জন্য কিছু প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা দেয়া হলো।

আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ
২৬ মিরপুর রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা
ফোন : ৮৬১১৫৫৭

রেডিয়েন্ট ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন
অর্কিড প্লাজা, মিরপুর রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা
ফোন : ০১৭১১১৪০০০০, ০১৮১৭১৪১৮২৪

বাংলাদেশ ইন্টেরিয়র ডিজাইন ডেভেলপমেন্ট
১২৮ লেক সার্কাস কলাবাগান।
ফোন : ৯১১১১৫৮, ০১৭১২৫৫৪৬৬৩

ফ্যাশন ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন
টাওয়ার হেমলেট (ষষ্ঠ তলা)
১৬ কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ
বনানী, ঢাকা-১২১৩
ফোন : ৮৮১১৩৭৫, ০১৮১৩৬৭৮৪৪১

স্কাই হাই ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন
বাড়ি-২৭/১, রোড- ১৩/১
ধানমন্ডি, ঢাকা, ফোন : ৮১২০০৫৪

শান্ত মারিয়ম ইউনিভার্সিটি
বাড়ি-১, রোড-১৪, সেকশন-১০, উত্তরা, ঢাকা
ফোন : ৮৯৫৮০৪৮, ৮৯৫২৬১০

About সম্পাদক

মো: বাকীবিল্লাহ। গ্রামের বাড়ি বরগুনা জেলার পাথরঘাটাতে। থাকেন ঢাকার মতিঝিলে। পড়াশোনা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে -- সরকার ও রাজনীতি বিভাগ থেকে অনার্স, মাস্টার্স । পরে এলএলবি করেছেন একটা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তাঁর লেখালেখি মূলত: ক্যারিয়ার বিষয়ে। তারই সূত্র ধরে সম্পাদনা করছেন ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স নামে এই ম্যাগাজিনটি। এছাড়া জিটিএফসি গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে কর্মরত।

View all posts by সম্পাদক →

One Comment on “ঘর সাজানোর পেশা”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *