১৫টি কি-বোর্ড শর্টকাট যা সবার জানা থাকা উচিত

2
171

মো: বাকীবিল্লাহ

আমরা সাধারণত কি-বোর্ড দিয়ে লিখি। তবে অনেক কাজে ব্যবহার করি মাউস। কিন্তু সময় বাঁচাতে কি-বোর্ড শর্টকাটের বিকল্প নেই। আমরা জানি না। তাই ব্যবহার করি না। আসুন জেনে নিই কিছু কি-বোর্ড শর্টকাট।

  • Ctrl+F : ডকুমেন্ট বা ওয়েব পেজে কোনো কিছু খুঁজতে ব্যবহার করতে পারেন এ শর্টকাট। দেখুন না কত সহজে খুঁজে বের করা যায় প্রয়োজনীয় তথ্য। এক সমীক্ষায় দেখা গেছে ৯০ শতাংশ ব্যববহারকারীই এ শর্টকাট কখনো ব্যবহার করেননি। আপনিও কি তাদের দলে?

  • Ctrl+Tab : ব্রাউজারে ওপেন করা ট্যাবগুলোতে একের পর এক যেতে ব্যবহার করতে পারেন এ শর্টকাট।

  • Ctrl+Shift+Tab : ব্রাউজারে ওপেন করা ট্যাবগুলো বিপরীতমুখী ভ্রমণে ব্যবহার করতে পারেন এই শর্টকাট।

  • Alt+Tab : ব্রাউজার থেকে ট্যাবসম্পন্ন কোনো অ্যাপ্লিকেশনে যেতে অথবা পুনরায় ব্রাউজারে যেতে ব্যবহৃত হয় এই শর্টকাট।

  • Ctrl+T : ব্রাউজারের একই উইন্ডোতে নতুন ট্যাব খুলতে ব্যবহার করা যাবে এ শর্টকাট।

  • Ctrl+N : ব্রাউজারের আলাদা উইন্ডো খুলতে এ শর্টকাট ব্যবহৃত হয়।

  • Ctrl+L : চলমান ট্যাবের অ্যাড্রেসবারে লিখতে এ শর্টকাটটি ব্যবহার করতে পারেন।

  • Ctrl+W : চলমান ট্যাবটি বন্ধ করতে ব্যবহার করতে পারেন শর্টকাটটি।

  • Ctrl+C : কোনো কিছু কপি করতে ব্যবহার করুন শর্টকাটটি।

  • Ctrl+X : কোনো কিছু কাট করতে ব্যবহার করুন শর্টকাটটি।

  • Ctrl+V : কপি বা কাটের পর পেস্ট করতে ব্যবহৃত হয় এ শর্টকাট।

  • Ctrl+Z : সর্বশেষ পরিবর্তনটি আনডু করতে চাইলে ব্যবহার করতে পারে এই শর্টকাটটি।

  • Ctrl+A : ডকুমেন্ট বা ওয়েবপেজের সব কিছু সেলেক্ট করতে ব্যবহৃত হয় এ শর্টকাট।

  • Ctrl+S : কোনো কিছু সেভ করতে ব্যবহার করুন এ শর্টকাট।

  • Shift+Ctrl+Right : কোনো শব্দের প্রথমে কার্সর রেখে এ শর্টকাট ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট শব্দটি সেলেক্ট করা যায়।

  • Ctrl+Right : পরবর্তী শব্দের শুরুতে কার্সর নিতে এ শর্টকাট ব্যবহার করা যায়।

    এগুলো ছাড়া আরো অনেক কিবোর্ড শর্টকাট আছে। তাছাড়া সফটওয়ার ব্যবহার করে আপনি নিজেও বানিয়ে নিতে পারবেন আরো শর্টকাট।

    তাহলে শর্টকাট ব্যবহার করুন। আর সময় বাঁচিয়ে করুন আরো অনেক কাজ।

ঘোষণা

আপনিও লিখুন


প্রিয় পাঠক, আপনিও লিখতে পারেন ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্সে। শিক্ষা, ক্যারিয়ার বা পেশা সম্পর্কে যে কোনো লেখা আমাদের কাছে পাঠিয়ে দিন। পাঠাতে পারেন অনুবাদ লেখাও। তবে সেক্ষেত্রে মূল উৎসটি অবশ্যই উল্লেখ করুন লেখার শেষে। লেখা পাঠাতে পারেন ইমেইলে অথবা ফেসবুক ইনবক্সে। ইমেইল : [email protected]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here