ধনী হওয়ার গোপন সূত্র

0
217

rich-peopleক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স ডেস্ক

ধনী হতে কে না চায়। কিন্তু সবাই ধনী হতে পারে না। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিশ্বের সম্ভাবনাময় এমন লাখ লাখ কোটিপতি আছেন যারা শুধু তাদের বদ অভ্যাসগুলো ত্যাগ করতে পারলেই ধনীদের খাতায় নাম লেখাতে পারতেন।

লাইফস্পান সাময়িকীর মতে, কিছু আর্থিক ভুলই মানুষকে সম্পদ থেকে দূরে রাখছে।

অমিতব্যয়ী
আপনি যদি আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি করেন তা সেটা সম্পদ অর্জনের অন্তরায়। সুতরাং মাসিক খরচ কোথায় কত করলেন সেটা লক্ষ্য করুন। খরচ কমানোর উপায় বের করুন। বাস্তবসম্মত সাংসারিক বাজেট তৈরি করুন।

সঞ্চয়ের পাত্র খালি
শুধু খরচ করলেই হবে না। সঞ্চয়ে দিকেও খেয়াল করতে হবে। সম্পদ বাড়ানোর জন্য সঞ্চয়ের বিকল্প নেই।

খুব বেশি ঋণ
সামান্য ঋণ আপনার সাফল্যের সহায়ক হতে পারে। তবে অতি উচ্চমাত্রায় ঋণ কারো জন্যই মঙ্গলজনক নয়। এতে করে ঋণের বৃত্তের ভেতর থেকে বের হওয়া অসম্ভব হয়ে পড়ে।

পরিকল্পনার ‍অভাব
পরিকল্পনাহীন জীবনে ধনী হওয়া দিবা স্বপ্নের মতো। পরিকল্পনা মাফিক নিয়মিত কাজ করে যেতে থাকলে সাফল্য অবধারিত।

বিপদকালীন ফান্ড
বলা হয়ে থাকে, কারো ছয়মাস চলার মতো জরুরি ফান্ড থাকা দরকার। বিপদের সময় এই ফান্ড যেকোনো দুর্যোগ থেকে রক্ষা করবে।

দেরিতে শুরু করা
আগে শুরু করলেন মানে আপনি এগিয়ে গেলেন। সময় যেহেতু চলেই যাচ্ছে সুতরাং আজই সেভিং করা শুরু করে দিন না।

কাজের চেয়ে অজুহাত বেশি
আমি যথেষ্ট আয় করতে পারছি না, জীবন যাত্রা খুবই ব্যয়বহুল এ জাতীয় কথাবার্তা শুধু বলেই যাচ্ছেন কিন্তু কাজ করছন না তাহলে তো ভাগ্যের পরিবর্তন হবে না। যে পর্যন্ত না আপনি পরিবর্তনে হাত না দেবেন সে পর্যন্ত কিছুই পরিবর্তন হবে না। সুতরাং অজুহাত- অভিযোগ বাদ দিয়ে কাজ করা শুরু করুন।

আজই সব
আপনি যদি আগামীকালের জন্য কিছু না রেখে আজই সব খরচ করে ফেলে থাকেন তাহলে ভুল করছেন। কালকের জন্য ভাবুন।

এক স্থানে বিনিয়োগ
কোনো নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে আপনি সব টাকা বিনিয়োগ করে ফেলেছেন? তাহলে ভুল করেছেন। এর মাধ্যমে আপনি নিজেকে ঝুঁকির মধ্যে রেখেছেন। বহুমুখী খাতে বিনিয়োগ করতে হবে।

কেউ এসে করে দিবে
অনেকে ভেবে থাকেন আ-রে ব্যাপার না এমনিতেই হয়ে যাবে। অন্যের ওপর নির্ভরশীল না হয়ে নিজের কাজ নিজে করুন।

ঘোষণা

আপনিও লিখুন


প্রিয় পাঠক, আপনিও লিখতে পারেন ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্সে। শিক্ষা, ক্যারিয়ার বা পেশা সম্পর্কে যে কোনো লেখা আমাদের কাছে পাঠিয়ে দিন। পাঠাতে পারেন অনুবাদ লেখাও। তবে সেক্ষেত্রে মূল উৎসটি অবশ্যই উল্লেখ করুন লেখার শেষে। লেখা পাঠাতে পারেন ইমেইলে অথবা ফেসবুক ইনবক্সে। ইমেইল : [email protected]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here