নৌবাহিনীর বিভিন্ন শাখায় নিয়োগ

‘শান্তিতে সংগ্রামে সমুদ্রে দুর্জয়’ এই স্লোগান নিয়ে দেশের সেবায় কাজ করে চলেছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী। সম্মান, গৌরব, মর্যাদাময় ও বিশ্ব ভ্রমণের রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা এবং আর্থিক সচ্ছলতা সবই পেতে পারেন নৌবাহিনীতে যোগ দিয়ে। বাংলাদেশ নৌবাহিনী সম্প্রতি লোকবল নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। এতে এইচএসসি পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। বিজ্ঞপ্তিটি ২০ জুলাই দৈনিক যুগান্তর পত্রিকায় পাওয়া যাবে।

কোন কোন শাখায় নিয়োগ : বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী নৌবাহিনীতে জাহাজের ক্যাপ্টেন, এয়ারক্রাফট পাইলট, নৌ কমান্ড ও সাবমেরিনার পদে অফিসার ক্যাডেট হিসেবে নিয়োগ দেয়া হবে।

আবেদনের যোগ্যতা : বাংলাদেশ নৌবাহিনী অফিসার ক্যাডেট হিসেবে আবেদনের জন্য প্রার্থীকে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে আলাদাভাবে জিপিএ ৪.৫০ পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। এছাড়া পদার্থ ও উচ্চতর গণিতে জিপিএ ৪.০ করে থাকতে হবে। ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থীদের জন্য পদার্থ ও উচ্চতর গণিতসহ ও লেভেলে ছয়টি বিষয়ের মধ্যে ন্যূনতম তিনটি বিষয়ে এ গ্রেড এবং দুইটি বিষয়ে বি গ্রেট এবং এ লেভেলের জন্য ন্যূনতম দুইটি বিষয়ে বি গ্রেড পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। তবে শুধুমাত্র সরবরাহ শাখার জন্য এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় জিপিএ ৪.৫০ পেয়ে উত্তীর্ণরা আবেদন করতে পারবেন। সশস্ত্র বাহিনীতে কর্মরত প্রার্থীদের ক্ষেত্রে নৌবাহিনীর উচ্চমান পরীক্ষা (এইচইটি) বা সমমানের বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং বাংলাদেশ বিমানবাহিনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

আবেদনকারীর বয়স শারীরিক যোগ্যতাআবেদনকারীর বয়স ১ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখে সাড়ে ১৬ থেকে ২১ বছর হতে হবে। সশস্ত্র বাহিনীতে কর্মরত প্রার্থীদের বয়স ১৮ থেকে ২৫ বছর হতে হবে। এক্ষেত্রে কোনো এফিডেফিট গ্রহণযোগ্য হবে না। প্রার্থীদের উচ্চতা কমপক্ষে ১৬২.৫ সে.মি. বা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি। বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৭৬ সে.মি. বা ৩০ ইঞ্চি এবং প্রসারিত অবস্থায় ৮১ সে.মি. বা ৩২ ইঞ্চি। এ ছাড়া ওজন হতে হবে ৫০ কেজি। উল্লেখ্য, আবেদনকারীকে বাংলাদেশের অবিবাহিত পুরুষ নাগরিক হতে হবে।

আবেদন প্রক্রিয়াঅনলাইন ও সরাসরি উভয় পদ্ধতিতেই আবেদন করা যাবে। অনলাইনে আবেদনের জন্য ট্রাস্ট ব্যাংকের মোবাইল মানি (টিবিএমএম)-এর মাধ্যমে অথবা ট্রাস্ট ব্যাংকের যে কোনো শাখায় নৌবাহিনীর অফিসার পদের ভর্তি ফি বাবদ ৭০০ টাকা জমা দিতে হবে। টাকা জমা দিলে একটা ট্রানজেকশন আইডি পাওয়া যাবে। অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে  www.navy.mil.bd সাইটে লগইন করে  Apply Now ট্যাবে ক্লিক করে পরবর্তী নির্দেশনা অনুযায়ী আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে। সরাসরি www.joinnavy.mil.bd ওয়েবসাইট থেকে আবেদন করা যাবে। ফরম পূরণের সময় ওই ট্রানজেকশন আইডি ফরমের পেমেন্ট পেইজে যথা স্থানে লিখতে হবে। প্রার্থীকে অনলাইনে কলআপ লেটার পাঠানো হবে। কলআপ লেটারটি সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। প্রাথমিক সাক্ষাৎকারের সময় এক কপি পাসপোর্ট আকারের সত্যায়িত ছবি প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্রসহ কলআপ লেটারটি জমা দিতে হবে।

সরাসরি আবেদনের জন্য প্রার্থীকে যে কোনো ব্যাংক হতে বিএন রিক্রুটমেন্ট ফান্ড, ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড, প্রিন্সিপাল ব্রাঞ্চ, ঢাকা এর অনুকূলে ৭০০ টাকা জমা দিতে হবে। টাকা জমার মানি রিসিপ্ট দেখিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত কেন্দ্র থেকে আবেদন ফরম সংগ্রহ করা যাবে। আবেদন ফরম যথাযথ ভাবে পূরণ করে সম্প্রতি তোলা রঙিন তিন কপি পাসপোর্ট আকারের সত্যায়িত ছবি, মানি রিসিপ্ট, সব শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ ও মার্কশিটের কপি এবং নাগরিকত্ব সনদের সত্যায়িত কপিসহ বিজ্ঞাপনে উল্লেখিত প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্র সংযুক্ত করে পরিচালক, পার্সোন্যাল সার্ভিসেস পরিদফতর, নৌবাহিনী সদর দফতর, বনানী, ঢাকা-১২১৩ বরাবর পাঠাতে হবে। আবেদনপত্রের সঙ্গে প্রাপকের জায়গায় প্রার্থীর ঠিকানা উল্লেখ করে আট টাকার টিকিটসহ ফেরত খাম সংযুক্ত করে দিতে হবে।

আবেদনের শেষ তারিখঅনলাইনে আবেদন করা ও সরাসরি আবেদন জমা দেয়া যাবে ১৩ আগস্ট, ২০১৭ তারিখ পর্যন্ত।

বাছাই প্রক্রিয়া : আবেদনকারীদের আবেদন যাচাই-বাছাই করে প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও প্রাথমিক সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকা হবে। এই পরীক্ষা হবে ২১-২৪ আগস্ট ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনা কেন্দ্রে । প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষায় সাধারণত প্রার্থীর বয়স, শারীরিক যোগ্যতা (উচ্চতা, ওজন, বুকের মাপ) দেখা হয়। প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের একই দিনে প্রাথমিক সাক্ষাৎকার নেয়া হবে। এখানে সাধারণত এসএসসি ও এইচএসসি লেভেলের প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। সাধারণ জ্ঞান থেকেও প্রশ্ন করা হয়। এছাড়াও প্রার্থীর ব্যক্তিত্ব ও স্মার্টনেসও দেখা হয়ে থাকে। প্রাথমিক সাক্ষাৎকারে উত্তীর্ণদের ২৫ আগস্ট লিখিত পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনা কেন্দ্রে। বিগত পরীক্ষা থেকে দেখা গেছে বুদ্ধিমত্তা এবং ইংরেজি দক্ষতা ও সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে ১২০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা হয়ে থাকে। এর মধ্যে বুদ্ধিমত্তা ৬০, ইংরেজিতে ৩০ এবং সাধারণ জ্ঞানে ৩০ নম্বর থাকে। এখান থেকে উত্তীর্ণ প্রার্থীদেরকে আন্তঃবাহিনী নির্বাচন পর্ষদ (আইএসএসবি) কর্তৃক পরীক্ষা ঢাকা সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত হবে। আইএসএসবি কর্তৃক নির্বাচিত প্রার্থীদের চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা সেনানিবাসের বিএনএস হাজী মহসীনে উপস্থিত হতে হবে। চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষায় উপযুক্ত প্রার্থীদের নৌবাহিনী সদর কর্তৃক চূড়ান্ত মনোনয়ন পর্ষদ কার্যক্রম ডিসেম্বর ২০১৭ এর মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে।

প্রশিক্ষণচূড়ান্তভাবে মনোনীত প্রার্থীরা বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে অফিসার ক্যাডেট হিসেবে যোগদান করবেন। বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমিতে ১০ সপ্তাহের প্রশিক্ষণসহ বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে ২৪ মাস এবং মিডশিপম্যান হিসেবে ১২ মাসসহ মোট ৩ বছর মেয়াদি আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণ শেষে বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে ‘সাব লেফটেন্যান্ট’ পদে নিয়মিত কমিশন প্রদান করা হবে।

বেতন ভাতা : চূড়ান্তভাবে নির্বাচিতরা নির্ধারিত অন্যান্য সুবিধাসহ সশস্ত্র বাহিনীর বেতন কাঠামো অনুযায়ী বেতন ও ভাতাদি পাবেন। মেধাবী অফিসার দেশ-বিদেশে সরকারি খরচে উচ্চশিক্ষা, জাতিসংঘ শান্তি রক্ষা মিশনে বিদেশ ভ্রমণ ও আর্থিক সচ্ছলতা অর্জনের সুযোগ পাবেন। এ ছাড়া নিজ সন্তানদের যোগ্যতা অনুযায়ী ক্যাডেট কলেজ, আর্ম ফোর্সেস মেডিকেল কলেজ, এমআইএসটি ও নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত স্কুল-কলেজে অধ্যয়নের সুযোগ পাবে।

বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন : পার্সোন্যাল সার্ভিসেস পরিদফতর,
নৌবাহিনী সদর দফতর, বনানী
ঢাকা-১২১৩, ওয়েবসাইট: www.joinnavy.mil.bd

 

About সম্পাদক

মো: বাকীবিল্লাহ। গ্রামের বাড়ি বরগুনা জেলার পাথরঘাটাতে। থাকেন ঢাকার মতিঝিলে। পড়াশোনা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে -- সরকার ও রাজনীতি বিভাগ থেকে অনার্স, মাস্টার্স । পরে এলএলবি করেছেন একটা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তাঁর লেখালেখি মূলত: ক্যারিয়ার বিষয়ে। তারই সূত্র ধরে সম্পাদনা করছেন ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স নামে এই ম্যাগাজিনটি। এছাড়া জিটিএফসি গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে কর্মরত।

View all posts by সম্পাদক →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *