Home » পরামর্শ » ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং » ইন্টারভিউতে বাদ পড়েছেন?

ইন্টারভিউতে বাদ পড়েছেন?

মোঃ নাজমুল হাসান নাহিদ

চাকরির ইন্টারভিউয়ে বাদ পড়েছেন? পাবলিক ভার্সিটির ভর্তি পরীক্ষায় বাদ পড়েছেন? পছন্দের মানুষটিকে প্রস্তাব করে রিফিউজ হয়েছেন? এই বাদ পড়ে যাওয়া লোকেদের জন্য আজকে আমাদের এই লেখা।

বাদ পড়ে যাওয়ার সাথে সাথেই বেশিরভাগ মানুষের ক্ষেত্রে যেটা হয় তা হলো- আমরা অনেক কষ্ট পাই, হতাশ হয়ে যাই, নিজের দোষ খুঁজতে থাকি। “কেন আমার সাথে এমন হলো?”, “আমার কোন জায়গাতে সমস্যা?” ইত্যাদি প্রশ্ন নিজেকেই করতে থাকি। আজকে একটু ভিন্নভাবে ভাবতে বলবো। বাদ পড়ে যাওয়ায় মোটেও হতাশ হবার কিছু নেই।

প্রথমত, দোষটা আপনার না! একটু হাস্যকর মনে হলেও একদম ঠাণ্ডা মাথায় চিন্তা করুন। বাদ কি আপনি দিয়েছেন? বাদ দিয়েছেন তিনি বা তারা। সমস্যা থাকলে তাদের আছে। আপনার না। তাই সমস্যার কারণ হিসেবে নিজেকে দোষী সাব্যস্ত করা থেকে বিরত হোন।

দ্বিতীয়ত, আপনি বাদ পড়েছেন কেন তা ঠাণ্ডা মাথায় ভেবে দেখা যেতে পারে। হতে পারে, এই বাদ পড়ে যাওয়ার কারণে বরং ভালোই হয়েছে আপনার জন্যে। দুইটা উদাহরণ না দিয়ে পারছি না।

এক: খুব সম্ভবত ২০০৯-এর দিকে আমি একটি কাপড়ের শোরুমের সেলসম্যান পদে চাকরির ইন্টারভিউ দিতে গিয়েছিলাম। বাদ পড়েছিলাম সেই ইন্টারভিউয়ে। সে সময় মন খারাপ হয়েছিল। কিন্তু আজ উপলব্ধি করি, সেদিন চাকরিটা আমার জন্য উপযুক্ত ছিল না। আমার ও কোম্পানির দুই পক্ষের জন্যেই ভালোর চেয়ে খারাপই হতো চাকরিটা পেলে।

দুই: খুব অল্প কয়েকবার প্রেম এসেছিল আমার জীবনে। আবার চলেও গেছে। আমার জানা মতে- আমার দোষ ছিল খুব অল্পই। যা হোক, শুরুতে কষ্টটা অনেক বেশি প্রকট মনে হলেও সময় বলে দেয়, যা হয়েছে ভালোর জন্যেই হয়েছে। তাদের সঙ্গে থাকলে আজ আমার জীবন তেজপাতা হয়ে যেত। কয়েক বছর আগে আমাকে ফেলে যে বা যারা অন্য কোনো ভালো অপশন খুঁজে নিয়েছিল অন্তত তাদের থেকে আমি আজ অনেক ভালো আছি। প্রেম ভালোবাসার ক্ষেত্রে বাদ পড়ে যাওয়ায় অনেক বেশি খুশি হওয়া উচিত। কারণ যে আপনাকে ছেড়ে চলে গেছে, সে কখনো আপনার ছিলই না। জীবন সঙ্গী অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটা জিনিস। সারা জীবন যার সঙ্গে থাকতে হবে এমন মানুষটিকে হতে হবে আপনার জন্য সবচেয়ে বেশি উপযুক্ত। তাই ভুল মানুষটি আপনাকে ছেড়ে চলে গেছে অথবা আপনাকে বাদ দিয়েছে- এর চেয়ে খুশির সংবাদ আমি আর কিছু দেখি না! আজ আমি সিঙ্গেল হিসেবে অনেক খুশি। সঠিক মানুষটির জন্য অপেক্ষা করতে আমার এখন অফুরন্ত সময় ও সুযোগ আছে। এটি কি খুশির সংবাদ নয়?

তৃতীয়ত, সবকিছুর পেছনেই একটা কারণ থাকে। বাদ পড়ে যাবার পেছনের কারণগুলো আপনাকে একটা নির্দেশনা দেবে। যে আপনাকে বাদ দিয়ে দ সে আপনাকে একটা শিক্ষা দিলো, যা আপনাকে ভবিষ্যতে আরো এগিয়ে দেবে। ওই পক্ষ থেকে কী ধরনের মানুষ চাওয়া হচ্ছে, কেন চাওয়া হচ্ছে- আর আপনি কী চান, কেন চান, এসব খুঁজে বের করুন। আপনার লক্ষ্যের সাথে তাদের লক্ষ্য মিলছে কি-না সেটা নিশ্চিত হোন। যার সাথে আপনার ভবিষ্যত লক্ষ্য মিলে না এমন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান থেকে বাদ পড়ে যাওয়াটা আপনার জন্য বিরাট সৌভাগ্যের ব্যাপার!

চতুর্থত, অনেক জায়গা থেকে বাদ পড়েছেন মানে আপনার জন্য সঠিক জায়গাটি এখন আরো বেশি কাছে। জায়গাটি খুঁজে বের করুন এবং তাতে যোগ দিন। সেজন্য প্রয়োজন আগে নিজেকে জানা। আপনি কে, কেন এসেছেন পৃথিবীতে, কী করতে চান, কেন চান ইত্যাদি প্রশ্নের উত্তর বের করে আপনার লক্ষ্য আপনাকেই স্থির করতে হবে। সেই লক্ষ্য কীভাবে অর্জন করবেন সেটার পরিকল্পনাও আপনাকেই করতে হবে। আর এটা আমি আপনাকে জ্ঞান দিচ্ছি না। দার্শনিক সক্রেটিসের বিখ্যাত উক্তি, Know Thyself!

Career Intelligence on Youtube

About সম্পাদক

মো: বাকীবিল্লাহ। গ্রামের বাড়ি বরগুনা জেলার পাথরঘাটাতে। থাকেন ঢাকার মতিঝিলে। পড়াশোনা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে -- সরকার ও রাজনীতি বিভাগ থেকে অনার্স, মাস্টার্স । পরে এলএলবি করেছেন একটা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তাঁর লেখালেখি মূলত: ক্যারিয়ার বিষয়ে। তারই সূত্র ধরে সম্পাদনা করছেন ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স নামে এই ম্যাগাজিনটি। এছাড়া জিটিএফসি গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে কর্মরত।