ভারতে পড়াশোনার সুযোগ

২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ভারতের বিভিন্ন স্বনামধন্য কলেজ ও প্রতিষ্ঠানে নিজ-ব্যয়ে অধ্যয়ন স্কিমে মেডিক্যাল/ডেন্টাল/ইঞ্জিনিয়ারিং ও ফার্মাসি পাঠ্যক্রমে ভর্তির জন্য বাংলাদেশের যোগ্য নাগরিকদের কাছ থেকে দরখাস্ত আহ্বান করছে ভারত সরকার।

১. এমবিবিএস, বিডিএস ২. বি ই/ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং ৩. বি ফার্মা/ডিপ্লোমা ইন ফার্মাসি

যোগ্যতা: এসব পাঠ্যক্রমে ভর্তি হতে হলে প্রার্থীকে এসএসসি ও এইচএসসি-তে (ভারতের সিবিএসই মানের ১০+২ অনুরূপ) পদার্থ, রসায়ন ও গণিত (বি ই/ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ক্ষেত্রে) অথবা পদার্থ, রসায়ন ও প্রাণিবিদ্যা অর্থাৎ উদ্ভিদ ও জীববিজ্ঞান (এমবিবিএস/বিডিএস/বি ফার্মাসি/ডিপ্লোমা ইন ফার্মাসি-র ক্ষেত্রে) কমপক্ষে ৬০% এবং ইংরেজিতে ৫০% মার্কসহ গড়ে ন্যূনতম ৬০% মার্ক পেতে হবে।

হাই কমিশন অফ ইন্ডিয়ার ওয়েবসাইটে http://hcidhaka.gov.in/pages.php?id=62-এ আবেদনপত্র এবং বিস্তারিত নির্দেশাবলী দেওয়া আছে। আগ্রহী প্রার্থীদের প্রথমে বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং ঢাকাস্থ ভারতীয় হাই কমিশনের সত্যায়িত প্রয়োজনীয় সনদ/কাগজপত্রসহ যথাযথভাবে পূরণকৃত আবেদনপত্রের ৪টি সেট ভারতীয় হাই কমিশনের শিক্ষা বিভাগ বাড়ি নং-২, সড়ক নং-১৪২, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২-য় ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩০ মার্চ ২০১৬-র মধ্যে যে কোন কর্মদিবসে (রবিবার-বৃহস্পতিবার) দুপুর ১২.০০টা থেকে বিকেল ৪.০০টার মধ্যে জমা দিতে হবে।

ব্যক্তিগতভাবে আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সময় প্রার্থীদের মূল সার্টিফিকেট পরীক্ষণের জন্য জমা দিতে হবে।

আবেদনপত্র জমাদানের শেষ তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৬।

আরও তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন ৯৮৮৮৭৮৯-৯১ এক্সটেনশন ৩১১ বা ১৪২।

About সম্পাদক

মো: বাকীবিল্লাহ। গ্রামের বাড়ি বরগুনা জেলার পাথরঘাটাতে। থাকেন ঢাকার মতিঝিলে। পড়াশোনা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে -- সরকার ও রাজনীতি বিভাগ থেকে অনার্স, মাস্টার্স । পরে এলএলবি করেছেন একটা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তাঁর লেখালেখি মূলত: ক্যারিয়ার বিষয়ে। তারই সূত্র ধরে সম্পাদনা করছেন ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স নামে এই ম্যাগাজিনটি। এছাড়া জিটিএফসি গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে কর্মরত।

View all posts by সম্পাদক →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *