Home » খবরা-খবর » চাকরির খবর » সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা পদে নিয়োগ

সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা পদে নিয়োগ

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা পদে মোট ৮০০ জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে সংবাদপত্রে। এর মধ্যে ৬৮৯টি পদে স্থায়ী ও বাকি পদগুলোতে অস্থায়ী ভিত্তিতে লোক নিয়োগ করা হবে। আবেদনপত্র অবশ্যই আগামী ১০ জুন সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে অনলাইনের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। এরপর নির্বাচন ও প্রার্থী বাছাইয়ের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন (বিপিএসসি) সচিবালয়। প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচনী পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হবে।

আবেদন করার যোগ্যতা
আগ্রহী প্রার্থীকে স্নাতকোত্তর বা সমমান পাস হতে হবে। এ ছাড়া চার বছর মেয়াদি স্নাতক পাস বা সমমানের প্রার্থীরাও আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীর বয়স হতে হবে অনূর্ধ ৩০ বছর। তবে মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানের ক্ষেত্রে বয়স ৩২ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য। আর বিভাগীয় প্রার্থীর জন্য বয়সের ভিন্নতা আছে। ঢাকাসহ রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট কেন্দ্রে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আবেদনপত্র পূরণের সময় প্রার্থী যে কেন্দ্রের নাম উল্লেখ করবেন তাঁকে সেখানেই পরীক্ষা দিতে হবে।

যেভাবে আবেদন করবেন…
প্রার্থীকে বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশনের (বিপিএসসি) ওয়েবসাইট www.bpsc.gov.bd বা টেলিটক মোবাইলের http://bpsc.teletalk.com.bd এই ঠিকানার মাধ্যমে আবেদনপত্র বিপিএসসি ফরম-৫ পূরণ করে জমা দিতে হবে। এখানে নন-ক্যাডার ঘরে ক্লিক করলে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ও আবেদনপত্র পূরণের যাবতীয় তথ্য পাওয়া যাবে। আবেদনপত্রের নির্ধারিত ঘরে ৩০০×৩০০ পিক্সেল ও ১০০ কেবি সাইজের ছবি জেপিজি ফরমেটে দিতে হবে। আবেদনপত্রে প্রার্থীর স্বাক্ষর ৩০০×৮০ পিক্সেল ও ১০০ কেবি সাইজের জেপিজি ফরমেটে দিতে হবে। সবকিছু নির্ভুলভাবে পূরণ করে আবেদনপত্র জমা হলে প্রার্থী আইডি নম্বর ও ছবিসহ একটি কপি পাবেন। প্রার্থীকে ওই কপি প্রিন্ট বা ডাইনলোড করে সংগ্রহে রাখতে হবে। আইডি নম্বর ব্যবহার করে যেকোনো প্রিপেইড টেলিটক থেকে এসএমএস-এর মাধ্যমে পরীক্ষার ফি জমা দিতে হবে। পরীক্ষার ফি ৫০০ টাকা। ফি অবশ্যই আবেদনপত্র জমা দেওয়ার তিন দিনের মধ্যে দিতে হবে। তখন ফিরতি এসএমএস-এ প্রার্থীকে একটি গোপন নম্বর দেওয়া হবে। আইডি ও গোপন নম্বর ব্যবহার করে অনলাইন থেকে প্রবেশপত্র প্রিন্ট বা ডাউনলোড করে নিতে হবে।

নির্বাচনী পরীক্ষা
জানা গেছে, প্রার্থী নিয়োগের ক্ষেত্রে বাছাই পরীক্ষার পরে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। তবে আবেদনকারীর সংখ্যা দুই হাজারের বেশি হলেই কেবল ১০০ নম্বরের বাছাই পরীক্ষা নেওয়া হবে। বাছাই পরীক্ষায় নৈর্ব্যত্তিক প্রশ্ন থাকবে। এক ঘণ্টার এই পরীক্ষায় বাংলা, ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান ও গণিত বিষয়ে প্রশ্ন করা হবে। ভুল উত্তরের জন্য ০.৫ নম্বর কাটা যাবে। বাছাই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের www.bpsc.gov.bd বিপিএসসি ফরম-৩ সংগ্রহ ও পূরণ করে শিক্ষাগত যোগ্যতাসহ অন্যান্য কাগজপত্র নির্ধারিত ঠিকানায় জমা দিতে হবে। পরবর্তী সময় লিখিত ২০০ ও মৌখিক ৫০ নম্বরের পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। লিখিত পরীক্ষায় বাংলা ৫০, ইংরেজি ৫০, গণিত ৬০ ও সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে ৪০ নম্বর থাকবে। উত্তীর্ণ হতে হলে প্রার্থীকে লিখিত পরীক্ষায় ন্যূনতম ৪৫ শতাংশ ও মৌখিক পরীক্ষায় ৪০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে। উভয় পরীক্ষাতেই আলাদাভাবে পাস করতে হবে।

আরও জানতে হলে….
বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন (বিপিএসসি) সচিবালয়
পুরোনো বিমানবন্দর ভবন, তেজগাঁও, ঢাকা।
ওয়েবসাইট: www.bpsc.gov.bd

Career Intelligence on Youtube

About সম্পাদক

মো: বাকীবিল্লাহ। গ্রামের বাড়ি বরগুনা জেলার পাথরঘাটাতে। থাকেন ঢাকার মতিঝিলে। পড়াশোনা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে -- সরকার ও রাজনীতি বিভাগ থেকে অনার্স, মাস্টার্স । পরে এলএলবি করেছেন একটা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তাঁর লেখালেখি মূলত: ক্যারিয়ার বিষয়ে। তারই সূত্র ধরে সম্পাদনা করছেন ক্যারিয়ার ইনটেলিজেন্স নামে এই ম্যাগাজিনটি। এছাড়া জিটিএফসি গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে কর্মরত।